খেলাধুলা

জুমার নামাজে অংশ নিতে ক্রিকেটারদের সিডিউল পরিবর্তন

2020/10/02/_post_thumb-2020_10_02_12_35_15.jpg

সাধারণত যেকোনো দীর্ঘ পরিসরের ম্যাচে দুই ঘণ্টা পরপর দেয়া হয় সেশন ব্রেক। প্রথম দুই ঘণ্টা পর দেয়া হয় ৪০ মিনিটের মধ্যাহ্ন আহারের লাঞ্চ ব্রেক। পরে আবার দুই ঘণ্টার দ্বিতীয় সেশন খেলে ২০ মিনিটের জন্য দেয়া হয় চা পানের টি ব্রেক। দুই থেকে পাঁচদিনের ম্যাচগুলোতে এমনটাই হয়ে থাকে।

তবে আজ (শুক্রবার) বাংলাদেশ ক্রিকেটারদের নিয়ে করা অন্তর্দলীয় প্রস্তুতি ম্যাচে বদলে গেছে এই চিরাচরিত সূচি। শুক্রবার হওয়ায় দুপুরে রয়েছে জুমার নামাজ। তাই দুই ঘণ্টার বদলে ৩ ঘণ্টা ১০ মিনিট ধরে খেলা হচ্ছে ম্যাচের প্রথম সেশন। পরে লাঞ্চ ব্রেকটিও ৪০ মিনিটের বদলে দেয়া হবে ৫০ মিনিটের। যাতে করে জুমার জামাতে অংশ নিতে পারেন ক্রিকেটাররা।

আজ সকালে সাড়ে ৯টায় শুরু হয়েছে টাইগারদের ক্রিকেটারদের নিজেদের মধ্যকার দুইদিনের অনানুষ্ঠানিক প্রস্তুতি ম্যাচ। স্বাভাবিক সূচিতে বেলা সাড়ে ১১টায় হওয়ার কথা ছিল প্রথম সেশন ব্রেক তথা লাঞ্চ ব্রেক। কিন্তু জুমার কথা মাথায় রেখে আজকের লাঞ্চ ব্রেক দেয়া হবে দুপুর ১২টা ৪০ মিনিটে। যা চলবে ১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত।

এ সময়ের মধ্যে বিসিবি ভবনের নিচতলায় থাকা নামাজ পড়ার স্থানে একসঙ্গে জামাতের মাধ্যমে জুমার নামাজ আদায় করে নেবেন জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। পরে ১টা ৩০ থেকে শুরু হবে দ্বিতীয় সেশনের খেলা এবং যথাসময়েই হবে টি ব্রেক ও শেষ সেশনের বাকি খেলা।

এদিকে আগেই জানা, পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসন আর ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুকের নামকরণেই দুই দল মাঠে নামবে। সে মোতাবেক প্রস্তুতি ম্যাচটিতে নাজমুল হোসেন শান্তর নেতৃত্বে ওটিস গিবসন একাদশ টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমেছে।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৩১ ওভার শেষে তাদের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১২১ রান। ডানহাতি ওপেনার সাইফ হাসান ৮৬ বলে ৬৪ রান করে আউট হয়েছেন। হাঁকিয়েছেন ৯ চারের সঙ্গে ১টি ছক্কা। অধিনায়ক শান্ত আউট হওয়ার আগে ৪ চার ও ১ ছয়ের মারে করেছেন ৬৮ বলে ৪২ রান।

অভিজ্ঞ মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ৩ ও উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান লিটন কুমার দাস ৭ রানে ব্যাটিং করছেন। এর আগে দিনের তৃতীয় ওভারেই তাসকিন আহমেদের বলে উইকেটে পেছনে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফিরেছেন ইমরুল কায়েস। তিনি ১ চারের মারে ১২ বলে করেছেন ৭ রান।

উল্লেখ্য, প্রথম দুইদিনের প্রস্তুতি ম্যাচে খেলছেন না ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল ও পেসার শফিউল ইসলাম। এছাড়া দ্বিতীয় পরীক্ষায় করোনা নেগেটিভ এলেও, পর্যবেক্ষণে রাখায় এ ম্যাচে জায়গা হয়নি আরেক পেসার আবু জায়েদ রাহীরও। তৃতীয় প্রস্তুতি ম্যাচে মাঠে নামতে পারেন তিনি।

ওটিস গিবসন একাদশ: সাইফ হাসান, ইমরুল কায়েস, নাজমুল হোসেন শান্ত (অধিনায়ক), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, লিটন কুমার দাস, সৌম্য সরকার, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, নাঈম হাসান, হাসান মাহমুদ, এবাদত হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান ও রুবেল হোসেন।

রায়ান কুক একাদশ: ইয়াসির আলী রাব্বি, সাদমান ইসলাম অনিক, মুমিনুল হক (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, নুরুল হাসান সোহান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, তাইজুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ, খালেদ আহমেদ ও আল আমিন হোসেন।

মন্তব্য