আন্তর্জাতিক

ভারতের অর্থনীতিতে ধ্বস

2020/09/03/_post_thumb-2020_09_03_14_51_45.png

করোনায় বেহাল ভারতের অর্থনীতি। ইতিহাসের সবচেয়ে বড় ধ্বস নেমেছে দেশটির জাতীয় আয়ে। ভারত সরকার অবশ্য দাবী করছে যে তাদের অর্থনীতিতে গতি ফিরতে শুরু করেছে।

বর্তমান বছরের এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে ভারতের জাতীয় আয় পূর্ববর্তী বছরের একই সময়ের তুলনায় ২৩*৯ শতাংশ কমেছে। ১৯৪৭ সালে ভারত ভাগের পর থেকে অর্থনীতিতে এত বড় ধাক্কা আর আসেনি। কেবল কৃষি খাত খানিকটা প্রবৃদ্ধি ধরে রাখতে পেরেছে। এই খাতে আয় বেড়েছে শতকরা ৩*৫ শতাংশ। শিল্প খাতে প্রবৃদ্ধি কমেছে ২০*৫। কয়লা, অপরিশোধিত তেল, প্রাকৃতিক গ্যাস, রিফাইনারি শিল্প, সার, ইস্পাত, সিমেন্ট এবং বিদ্যুৎ খাতের অবস্থা একেবারেই বিপর্যস্ত। ওই আট খাতে আয় কমার পরিমাণ ৪০*২৭। স্বাভাবিকভাবেই এর ধাক্কা পড়েছে রাজস্ব আয়ে। ঘাটতি রীতিমতো নাগালের বাইরে চলে গেছে। ১০ লক্ষ ৫৪ হাজার কোটি রুপি ব্যয়ের বিপরীতে আয় মাত্র ২ লক্ষ ৩২ হাজার কোটি। অর্থাৎ ঘাটতি ৮ লক্ষ ২১ হাজার কোটি যা গত বছর ছিল ৫ লক্ষ ৪৭ হাজার কোটি।

ভারত সরকারের চীফ ইকনোমিক এডভাইজার কে ভি সুব্রামানিয়াম অবশ্য আশাব্যাঞ্জক কথা শুনিয়েছেন। জিডিপি কমার হার এপ্রিলে ৩৮ শতাংশ থেকে জুলাইতে ৯*৬ শতাংশে হ্রাস পাওয়াকে তিনি অর্থনীতির ভি আকৃতির উন্নতি বলে ব্যাখ্যা করেছেন। ব্রিটেনের অর্থনীতির সাথে ভারতের তুলনা করে সুব্রামানিয়াম বলেছেন যে দুই দেশের অর্থনীতির আকার প্রায় একই মাপের হওয়া সত্ত্বেও ভারতের অর্থনীতি পুনরুদ্ধারের হার ভাল।

সূত্রঃ দি ট্রিবিউন

মন্তব্য